শ‍্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪ পরগনা:নিজের বেতনের অর্থ দিয়ে দুস্থ মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের সাহায্য এগিয়ে এলেন মাস্টারমশাই।
বসিরহাট মহকুমার অন্যতম প্রাচীন স্কুল বসিরহাট হাইস্কুল।এই স্কুলের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক সিঞ্চন বন্দ্যোপাধ্যায়।করোনোনার দাপটে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ রয়েছে স্কুল কলেজ। বিগত আট মাস ধরে দুস্থ ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন শিক্ষক সিঞ্চন বন্দ্যোপাধ্যায়।
দরদী শিক্ষক সিঞ্চন বাবু স্কুল বন্ধ থাকার পর থেকে শতাধিক দুঃস্থ ও মেধাবী ছাত্রদের বাড়ি গিয়ে তাদেরকে বিনা পয়সায় শিক্ষা দান করছেন। অন্যদিকে যারা বই খাতা পেন কিনতে পারছে না, এমনকি প্রতিদিনকার শিক্ষাদান থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সম্পূর্ণ নিজের উদ্যোগে বিনা পয়সায় বিনা পারিশ্রমিকে শিক্ষার পাঠ দিচ্ছেন।
তাদের হাতে তুলে দিচ্ছেন স্যানিটাইজার, মাস্ক,বিস্কুট,শুকনো খাবার। কখনো সাইকেল চড়ে আবার কখনো পায়ে হেঁটে একাই পৌঁছে যাচ্ছেন ছাত্রদের বাড়ি বাড়ি। পঞ্চম শ্রেণী থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত মহকুমার বিভিন্ন স্কুলের যেসব দুস্থ ও মেধাবী ছাত্র-ছাত্রী আছে তাদের পাশে দাঁড়িয়ে এক অনন‍্য নজির গড়ছেন এই শিক্ষক।
শিক্ষকের এই ধরনের কাজের অভিভূত আপ্লুত অভিভাবক থেকে শুরু করে ছাত্র ছাত্রী।সমাজ তৈরীর কারিগর যদি এইভাবে দুস্থ মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের পাশে এসে দাঁড়ায় তাহলে আগামী দিনে প্রচুর নতুন প্রতিভা তৈরি হবে এমনটাই মনে করছেন শিক্ষক মহল থেকে নাগরিক সমাজ।