শ্যাম বিশ্বাস, উত্তর ২৪ পরগনা: বিজেপি নেতাদের হাতে আক্রান্ত বিজেপি নেত্রী সহ গোটা পরিবার অভিযোগ বিজেপি নেত্রীর। জানা গিয়েছে ভবানীপুর গ্রামের
বছর ৫১ কাকুলি গাইন এলাকায় পুরনো বিজেপি নেত্রী হিসেবে পরিচিত অভিযোগ হাসনাবাদ ভবানীপুরে নব্য বিজেপি উত্থানে পুরনো বিজেপিরা আক্রান্ত হচ্ছে মহিলারাও রেয়াদ পাচ্ছে না । অভিযোগ, বুধবার সকাল দশটা নাগাদ কাকলি গাইনের বাড়িতে হামলা চালায় বিজেপি নেতা টেন্টু মল্লিক ও স্বপন মল্লিকের নেতৃত্বে একদল দুষ্কৃতী। ঘর থেকে বের করে কাকলি গাইনের জামা কাপড় ছিড়ে বেধড়ক মারধর করে এমনকি পায়ে শাবলের বাড়ি মারে। এই ঘটনায় কাকলী গাইনের স্বামী সৌমেন্দ্র গাইন প্রতিবাদ করতে এলে তার মাথা ফাটিয়ে দেয়, তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে টাকি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তার পাশাপাশি তাদের দুই ছেলেও আক্রান্ত হয়। আক্রান্ত বিজেপি নেত্রী টাকি গ্রামীণ হাসপাতাল ভর্তি। এই ঘটনা নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

আক্রান্ত বিজেপি নেত্রী কাকলি গাইন বলেন, “আমরা দীর্ঘদিন ধরে বিজেপি পার্টিটা করি, বহু অত্যাচার আতঙ্কের মধ্যেও এই দলটাকে টিকিয়ে রেখেছি, এখন যারা ওন্য দল থেকে আমাদের দলে এসেছে তারাই আমাদের আক্রমণ করছে”।

তিনি আরো বলেন, “এখানে এক প্রভাবশালী নেতার মদতে আমার উপর আক্রমণ হলো, আমার স্বামী আক্রান্ত হলেন ছেলেরাও বাদ গেলোনা”।